তাপসী পান্নু

তাপসী পান্নু

তাপসী পান্নু (জন্ম: ১ আগস্ট ১৯৮৭) একজন ভারতীয় মডেল এবং অভিনেত্রী, যিনি দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্র এবং বলিউড চলচ্চিত্র শিল্পে কাজ করেন। তাপসী একজন সফটওয়্যার পেশাজীবী হিসেবে কাজ করতেন, এবং অভিনেত্রী হবার পূর্বে মডেলিং কর্মজীবনে জড়িত ছিলেন। তার মডেলিং কর্মজীবনে তিনি কিছুসংখ্যক বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন, এবং ২০০৮ সালে \'প্যান্টালুন ফেমিনা মিস ফ্রেশ ফেস\' ও "সাফি ফেমিনা মিস বিউটিফুল স্কিন" খেতাব লাভ করেন।

মডেলিংয়ে সীমিত ভূমিকা রাখার পর, রাঘবেন্দ্র রাও পরিচালিত ২০১০ সালের ঝুম্মান্ডি নাডাম তেলুগু চলচ্চিত্রের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে তার অভিষেক ঘটান তাপসী। এরপর তিনি কয়েকটি চলচ্চিত্রে কাজ করেন যেমন, ২০১১ সালে আদুকালাম, ভাস্তাধু না রাজু এবং মি. পারফেক্ট। তার তামিল আদুকালাম চলচ্চিত্র ৫৮তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠানে ছয়টি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জিতে নেয়। তিনি এছাড়াও মালয়ালম, তেলুগু এবং হিন্দি চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন। আরম্ভাম (২০১৩) তামিল চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য তিনি ২০১৪ এডিসন পুরস্কার অনুষ্ঠানে সর্বাধিক অত্যুৎসাহী সঞ্চালক-নারী পুরস্কার জেতেন। ২০১৫ সালে, তিনি সামালোচকীয় এবং বাণিজ্যিকভাবে সফল বেবি চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। ২০১৬ সালে, তিনি পিংক চলচ্চিত্রে প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করেন। ২০১৭ সালে, প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করেন নাম শাবানা চলচ্চিত্রে, যেটি ২০১৫ সালের বেবি চলচ্চিত্রের প্রিকুএল। ২০১৭ সালে তিনি দা গাজি অ্যাটাক যুদ্ধ চলচ্চিত্র এবং জুড়ওয়া ২ কমেডি চলচ্চিত্রে কাজ করেন। তার সর্বাধিক বাণিজ্যিক সাফল্যর্জিত চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে জুড়ওয়া ২ (২০১৭)

এবং মিশন মঙ্গল (২০১৯)। ২০১৯ সালে ষাণ্ড কি আঁখ জীবনী চলচ্চিত্রে সেপ্টোগেনারিয়ান শার্পশুটার প্রকাশি তোমার চরিত্রে অভিণয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার সমালোচক পুরস্কার পেয়েছিলেন।

২০১৮ সালে ফোর্বস ইন্ডিয়া সেলিব্রিটি ১০০ তালিকায় ৬৮তম স্থানে অন্তর্ভুক্ত ছিলেন।

জীবনী



প্রাথমিক জীবন এবং পরিবার


তাপসী ১৯৮৭ সালের ১ আগস্ট ভারতের নতুন দিল্লির একটি শিখ পরিবারে জন্ম নেন।শাগুন পান্নু নামে তার একটি বোন রয়েছে এবং তাকেও চলচ্চিত্রে যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে তাপসীর। তিনি দিল্লির অশোক বিহারের মাতা জাই কৌর পাবলিক স্কুলে অধ্যয়ন করেন। এরপর নয়া দিল্লির গুরু টেগ বাহাদুর ইনিস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে কম্পিউটার বিজ্ঞান প্রকৌশল বিষয়ে স্নাতক সম্পন্ন করার পর তিনি সফটওয়্যার প্রকৌশল হিসেবে কাজ শুরু করেন। চ্যানেল ভি কর্তৃক আয়োজিত গেট গরর্জিয়াস প্রতিভা অনুষ্ঠানের অডিশনে নির্বাচিত হবার পর তিনি পেশাদার মডেল হিসেবে কাজ শুরু করেন, যা পরিণামে তাকে অভিনেত্রী হবার সুযোগ করে দেয়। তাপসী বিভিন্ন মুদ্রণ মাধ্যম এবং টেলিভিশন বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপনে উপস্থিত হয়েছেন এবং ২০০৮ সালের ফেমিনা মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে "প্যান্টালুন ফেমিনা মিস ফ্রেস ফেস" ও "সাফি পেমনা মিস বিউটিফুল স্কিন"-সহ একাধিক খেতাব লাভ করেন মডেলিংয়ের শুরুর সময় থেকে। একজন মডেল হিসেবে, তিনি রিলায়েন্স ট্রেন্ডস, রেড এফএম ৯৩.৫, ইউনিস্টাইল ইমেজ, কোকা-কোলা, মোটোরোলা, প্যান্টালুন্স, পিভিআর সিনেমাস, স্টান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, ডাবর, এয়ারটেল, টাটা ডোকোমো, ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিল, হাভেল্স এবং ভার্ডম্যান ইত্যাদি ব্যান্ডের সাথে চুক্তিবদ্ধ হন। তিনি এছাড়াও জাস্ট ফর উইমেন এবং মাস্টার্স সাময়িকীর প্রচ্ছদে উপস্থিত হয়েছেন। কয়েক বছর পর, পরিপূর্ণ স্বীকৃতি পাওয়ার অভাব রয়েছে ভেবে তিনি মডেলিংয়ে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন এবং চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করবেন বলে বিবেচনা করেন।

২০১০-২০১৫: চলচ্চিত্রে অভিষেক



তাপসী ২০১০ সালে কোবেলামুদি রাঘবেন্দ্র রাও পরিচালিত প্রণয়-সঙ্গীতধর্মী চলচ্চিত্র ঝুম্মন্দি নাদামে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষিক্ত হন, এতে তিনি একজন যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক ধনকুবের কন্যার চরিত্রে অভিনয় করেন, যিনি ঐতিহ্যগত তেলুগু সঙ্গীতের উপর গবেষণা করতে ভারত আসেন। চলচ্চিত্রটি মুক্তির আগে তাপসী আরও তিনটি চলচ্চিত্রে কাজ করার আমন্ত্রণ পান। পরবর্তীতে ধনুষের বিপরীতে আদুকালাম (২০১১) চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তামিল চলচ্চিত্রে তার অভিষেক ঘটে, এতে তিনি একজন অ্যাংলো-ভারতীয় মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেন, যিনি একজন গ্রামীণ ছেলের প্রেমে পড়েন। চলচ্চিত্রটি ৫৮তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠানে ছয়টি বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে। তার চরিত্র সম্পর্কে সিফাই ডটকম নামের একটি পর্যালোচনা ওয়েবসাইট ইতিবাচক মন্তব্য করে।তিনি ২০১১ সালে বিষ্ণু মঞ্চুর বিপরীতে ভাস্তাডু না রাজুর (২০১১) মাধ্যমে তেলুগু চলচ্চিত্রে পুনরায় অভিনয় করেন। পরবর্তীতে মাম্মুটি ও নাদিয়া মইড়ুর বিপরীতে ডাবলস (২০১১) চলচ্চিত্রের মাধ্যমে মালয়ালম চলচ্চিত্র শিল্পে তার অভিষেক ঘটে।

তাপসী তার পরবর্তী মুক্তিপ্রাপ্ত মি. পারফেক্ট (২০১১) চলচ্চিত্রে একটি স্বল্প চরিত্রে অভিনয় করেন। যেখানে, তিনি প্রভাস ও কাজল আগারওয়ালের বিপরীতে অভিনয় করেন এবং চলচ্চিত্রটি মাঝারি সাফল্য লাভ করে। তিনি রবি তেজা ও কাজল আগারওয়ালের বিপরীতে বীরা (২০১১) উচ্চ বাজেটের চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, যা সমালোচকদের নিকট থেকে মাঝারি পর্যালোচনা অর্জন করেন। এরপর তিনি তার দ্বিতীয় তামিল চলচ্চিত্র ভানন্ডান ভেন্ড্রনে উপস্থিত হন যা মিশ্র সমালোচনা লাভ করে এবং বক্স অফিসে তেমন সাফল্য পায় নি। তার পরবর্তী চলচ্চিত্র কৃষাণ ভামসি পরিচালিত মগুধু, যেখানে তিনি এক ঐতিহ্যগত তেলুগু মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেন গোপিচাঁদের বিপরীতে এবং তার চরিত্রের জন্য সমালোচকদের নিকট থেকে সুমন্তব্য লাভ করতে সমর্থ হন। তিনি তামিল-তেলুগু দ্বিভাষী গুন্ডেলো গোদারি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন, যার তামিল নাম[২৭] মারান্থেন মান্নাথনে। তিনি এছাড়াও সিদ্ধার্থ, ঋষি কাপুর, দিবেন্দু শার্মা এবং আলি জাফরের সঙ্গে চাশমি বাদুর চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউড চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে। চলচ্চিত্রটি ১৯৮১ সালের একই নামের চলচ্চিত্রের পুননির্মাণ। তাপসী হলিউড বিজ্ঞান কল্পকাহিনী রিড্ডিকের তামিল, তেলুগু এবং হিন্দি ভাষার সংস্করণে অভিনেত্রী কাতী সাকফের কণ্ঠ প্রদানের জন্য আমন্ত্রিত হয়েছিলেন, কিন্তু তার পূর্বচুক্তির জন্য তা ফিরিয়ে দেন। পরবর্তীতে ২০১৩ সালে, তিনি আরাম্বাম নামে বড় বাজেটের চলচ্চিত্রে অজিত কুমার ও আরিয়ার বিপরীতে অভিনয় করেন। চলচ্চিত্রে তার অবদানের জন্য তিনি ২০১৪ এডিসন পুরস্কার অনুষ্ঠানে সর্বাধিক অত্যুৎসাহী সঞ্চালক-নারী পুরস্কারে ভূষিত হন।

কোন চলচ্চিত্র মুক্তি ব্যতীত পরবর্তী এক বছর পর, ২০১৫ সালে অক্ষয় কুমারের বিপরীতে নিরাজ পান্ডে পরিচালিত বেবি চলচ্চিত্রে তিনি উপস্থিত হন। পরবর্তীতে তার দুইটি তামিল চলচ্চিত্র মুক্তি পায়। যার একটি হল ভৌতিক কমেডি চলচ্চিত্র মুনি ৩, যেখানে তিনি রাঘব লরেন্সের বিপরীতে অভিনয় করেন। অন্যটি হল ঐশ্বরিয়া আর ধনুষের ভাই রাজা ভাই, যেখানে তিনি একটি বিশেষ চরিত্রে উপস্থিত হয়ছিলেন। তার আসন্ন চলচ্চিত্রের মধ্য রয়েছে অমিত সাদের বিপরীতে হিন্দি চলচ্চিত্র রানিং শাদি.কম এবং অমিত রায়ের আগ্রা কা ডাবরা এবং একটি সিলভারগাভন পরিচালিত একটি তামিল চলচ্চিত্র।

২০১৬–বর্তমান



বেবি চলচ্চিত্রের পর, তাপসী সুজিত সরকারের পিংক চলচ্চিত্রে, এবং অভিষিক্ত পরিচালক সংকল্পের দ্বিভাষিক গাজী, সাবমেরিন চলচ্চিত্রে কাজ করেন। এছাড়াও তিনি প্রকাশ রাজের তড়কা চলচ্চিত্রে কাজ করছেন, যেটি রাজ পরিচালিত প্রথম হিন্দি চলচ্চিত্র। পরবর্তীতে তিনি নাম শাবানা চলচ্চিত্রে শিরোনাম চরিত্রে অভিনয় করেন, যা মূলত বেবি চলচ্চিত্রের একটি স্পিন-অফ হিসেবে নির্মিত। পরবর্তীতে, তাপসী ডেভিড ধবন–পরিচালিত জুড়ওয়া ২ চলচ্চিত্রে কাজ করেন।

২০১৮ সালে, তিনি সুজয় ঘোষের কনট্রাটিয়েম্পো স্প্যানিশ চলচ্চিত্রের পুনর্নির্মাণে আলি ফজলের বিপরীতে অভিনয় করবেন। তিনি এছাড়াও হকি খেলোয়াড় হরপেত চরিত্রে দিলজিৎ দোসাঞ্ঝের বিপরীতে শর্মা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।


By SHAJAL In 3 years ago এই লেখাটি 66 বার পড়া হয়েছে

ShajalBD.Com is a Real File Downloader Sub Site and does not upload or host any files on it's server. If you are a valid owner of any content listed here & want to remove it then pleases send us an DMCA formatted takedown notice at [email protected] We will remove your content as soon as possible. We will remove your content as soon as possible.

এই বিভাগের আরও কিছু খবর